নিজস্ব প্রতিবেদক : “কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতেও আমাদের জীবন থেমে নেই। মানুষ এই কঠিন পরিস্থিতিতেও এগিয়ে যাওয়ার ইতিহাস রচনা করছে। এই মাস স্বাধীনতার মাস। আমরা নয় মাসের স্বশস্ত্র মুক্তিয়ুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীনতাকে ছিনিয়ে এনেছিলাম। মুক্তিযুদ্ধের আগে যে ঘটনাগুলো ঘটে ছিল, সেগুলো ছিলো স্বাধিকার অর্জনের ধারাবাহিক লড়াই সংগ্রাম। এই লড়াই সংগ্রামের কারণ ছিলো, তৎকালীন সময়ে পূর্ব পাকিস্তানের প্রতি ক্ষমতাসীন সরকারের বৈষম্যমূলক আচরণ।

প্রশিক্ষণের উদ্বোধনী পর্বে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখছেন বিএনপিএস’র প্রজেক্ট ম্যানেজার সঞ্জয় মজুমদার

 “বীর বাঙালি অস্ত্র ধর, বাংলাদেশ স্বাধীন কর, আমার নেতা, তোমার নেতা শেখ মুজিব, শেখ মুজিব” উত্তাল মার্চের দিনগুলোতে এটি ছিল আমাদের আন্দোলন সংগ্রামে অন্যতম শ্লোগান। স্বাধীনতার এতো বছর পরও আমাদের সমাজে অনেক বৈষম্য বিদ্যমান রয়েছে, তবে স্বাধীনতা পূর্ব সময়ের বৈষম্যগুলো ছিলো বর্তমান সময় থেকে ভিন্ন।

প্রশিক্ষণে রিসোর্স পারসন সেশন পরিচালনা করছেন।

নারীর স্বাস্থ্য ও মাসিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা, স্বাস্থ্য অধিকারেরই অংশ। এর মাঝে একটি অংশ চিকিৎসা বিজ্ঞানের, অন্যটি হলো স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনার অংশ। মাসিক বা পিরিয়ড নারীর জীবনের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে। কিন্তু এ নিয়ে আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি কাঙ্খিত মাত্রায় নেই। আমরা শরীরের বিভিন্ন অঙ্গের সুস্থ্যতা বা পরিচ্ছন্নতার ক্ষেত্রে যতটা সচেতন, প্রজনন অঙ্গের সুস্থ্যতা ও পরিচ্ছন্নতার ক্ষেত্রে আমরা ততটাই উদাসীন।

প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখছেন বিএনপিএস’র নির্বাহী পরিচালক, মুক্তিযোদ্ধা রোকেয়া কবীর

মাসিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে প্রান্তিক এলাকায় নারীদের স্বাস্থ্য চর্চা ও ব্যবস্থাপনা এখনো খুব নাজুক অবস্থায় রয়েছে। শুধু তাই নয়, এর সাথে মিশে আছে দীর্ঘদিনের নেতিবাচক সামাজিক রীতি-নীতি ও বিভিন্ন কুসংস্কার। এগুলোকে সবার সামনে তুলে ধরতে হবে। কুসংস্কারগুলো ভাঙতে বিজ্ঞানভিত্তিক তথ্য-প্রমাণসহ আলোচনা করতে হবে। কারণ মাসিক স্বাস্থ্য নারীর সার্বিক জীবনের জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এটি নারীর শরীরের হরমোনের ভারসাম্য রক্ষা ও বিপাক প্রক্রিয়ার সাথেও জড়িত। তাই আপনারা এই প্রশিক্ষণলব্ধজ্ঞান প্রকল্পের কার্যক্রম বাস্তবায়নে ব্যবহারিক প্রয়োগের পাশাপাশি মানুষের মনোজগতে পরিবর্তন আনার ক্ষেত্রে সক্রিয় ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবেন বলে বিশ্বাস করি।”

সেশন পরিচালনা করছেন বিএনপিএস’র ক্যাপাসিটি বিল্ডিং কো-অর্ডিনেটর নাসরিন বেগম

সম্প্রতি ১ মার্চ সোমবার ‘আমাদের জীবন, আমাদের স্বাস্থ্য, আমাদের ভবিষ্যৎ’ প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘ’র আয়োজনে ৩ দিনব্যাপি ‘মাসিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা’ বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধনী পর্বে বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘ (বিএনপিএস) এর নির্বাহী পরিচালক, মুক্তিযোদ্ধা রোকেয়া কবীর এ কথাগুলো বলেন।

প্রশিক্ষণে দলীয় কাজের উপস্থাপনা করছেন প্রশিক্ষনার্থীগণ

এতে অংশগ্রহণকারী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তিন পার্বত্য জেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন সহযোগী স্থানীয় সংস্থা অনন্যা কল্যাণ সংগঠন (একেএস), গ্রাউস, খাগড়াপুর মহিলা কল্যাণ সমিতি (কেএমকেএস), প্রগ্রেসিভ, তংগ্যা, তহজিংডং, তৃণমূল উন্নয়ন সংস্থা, উইমেন এডুকেশন ফর এডভান্সমেন্ট এন্ড এমপাওয়ারমেন্ট (উইভ), হিল ফ্লাওয়ার এবং জাবারাং কল্যাণ সমূহের ৮ জন অফিসার কাম ট্রেইনার,  ২ জন প্রোগ্রাম ফ্যাসিলিটেটর এবং ৩ পার্বত্য জেলায় বিএনপিএস’র মাস্টার ট্রেইনারগণ।

প্রশিক্ষণে দলীয় কাজের উপস্থাপনা করছেন প্রশিক্ষনার্থীগণ

বিগত ০১ থেকে ০৩ মার্চ পর্যন্ত বিএনপিএস কনফারেন্স কক্ষে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের আর্থিক সহযোগিতায় আয়োজিত এই প্রশিক্ষণে সমন্বয়কারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন বিএনপিএস’র ক্যাপাসিটি বিল্ডিং কো-অর্ডিনেটর নাসরিন বেগম। প্রশিক্ষণে রিসোর্স পার্সন হিসেবে বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের স্বনামধন্য প্রশিক্ষক ও উন্নয়ন অভিজ্ঞজন এতে উপস্থিত ছিলেন।

প্রশিক্ষণে দলীয় কাজের উপস্থাপনা করছেন প্রশিক্ষনার্থীগণ

এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারী মোট ১৩ জন এই প্রকল্পের আওতায় পরিচালিত কিশোরী ক্লারের সাথে সম্পৃক্ত কিশোরীদের মাঝে মাসিক স্বাস্থ্যের এই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো ছড়িয়ে দিবেন।

প্রশিক্ষণটির সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন বিএনপিএস’র প্রজেক্ট ম্যানেজার সঞ্জয় মজুমদার। অন্যান্যের মাঝে সিমাভি বাংলাদেশের প্রোগ্রাম ম্যানেজার মাহবুবা হক কুমকুম, এমইএল অফিসার তুহিন সরকার এবং বিএনপিএস এর উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
About Author

Voicebd Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *