ডেভেলপমেন্ট সেক্টরের চাকুরিগুলো স্বল্পকালীন বা মেয়াদ ভিত্তিক হলেও, এখানে ব্যক্তির দক্ষতা ও যোগ্যতাকে খুব বিশেষভাবে বিবেচনা করা হয়। আর এক্ষেত্রে ভাইভা পরীক্ষাটি সন্তোষভাবে মোকাবেলা করা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। অনেকেই ভালো যোগ্যতা থাকা স্বত্ত্বেও শুধুমাত্র সঠিকভাবে ভাইভা পরীক্ষায় সঠিক প্রস্তুতি না থাকার কারণে, কাঙ্খিত চাকুরিটি পেতে ব্যর্থ হয়। আর সব পদে একই প্রশ্ন করা হয় না। প্রকল্পের কাজের ধরণ, পদের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ প্রশ্নই করা হয়ে থাকে। তবে প্রার্থীর যোগ্যতা যাচাইয়ে কিছু কমন প্রশ্ন রয়েছে, যেগুলো প্রায় সব ধরণের পদের ক্ষেত্রেই করা হয়। তাই এসকল প্রশ্নগুলোতে উত্তর প্রদানের ক্ষেত্রে নিজের দখল যত বেশি হবে, নিজেকে প্রকাশের জায়গাটা তত মজবুত হবে। সর্বোপরি নিজের সম্পর্কে ইতিবাচক মনোভাব তৈরির জন্য ইন্টারভিউ ফেস করার দক্ষতা আয়ত্ব করার বিকল্প নেই। নিম্নে কিছু কমন প্রশ্নগুলোর ‍উত্তর প্রদানের বিষয়টি নিয়ে কিছু সংক্ষিত আলোচনার চেষ্টা করেছি। আশাকরি, অনেকের উপকারে আসবে। 

১। Tell us about yourself/ আপনার নিজের সম্পর্কে বলুনঃ   

নিশ্চিতভাবে জেনে রাখুন Interview Board এ যারা বসে আছেন, তাদের কারো আপনার শখ বা Personal বিষয়ে Interest নেই।  এই প্রশ্নের উত্তরে best option হচ্ছে আপনি আপনার Carrier Summary বলতে পারেন তবে CV তে যা আছে নিশ্চয় তা Repeat করবেন না। Better হচ্ছে আপনি যেসব Organization এ কাজ করেছেন ওখানের Major Challenges এবং Overcome এর উপায়গুলো উল্লেখ করতে পারেন।

২। What is your motivation to apply in this position/ এই পদে আবেদন করার জন্য আপনার প্রেরণা হিসেবে কি কাজ করেছেঃ

“আমি মানবসেবা করতে আগ্রহী বা Rohingya দের জন্য কাজ করতে খুবই আগ্রহী।” এই ধরণের উত্তর দেয়া থেকে বিরত থাকুন। এই ধরণের উত্তরে তারা হয়ত বলেও দিতে পারে তাহলে আপনি Please Volunteer হিসেবে Join করুন।

আপনার পূর্বের অভিজ্ঞতা কিভাবে এই Position and Job Description (JD) এর সাথে Related সেটা উল্লেখ করুন । আপনি এই Position এ  Join করলে কি Value Add করতে পারবেন এবং কিভাবে Add করবেন তা Clearly বলার চেষ্টা করুন।

৩। What is your motivation to apply in this Organization/ এই প্রতিষ্ঠানে আবেদনের ক্ষেত্রে আপনাকে কোন বিষয়টি অনুপ্রাণিত করেছে?

প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে থেকে Basic কিছু Information জেনে নেওয়ার চেষ্টা করুন। কয়টা দেশে কাজ করে, কোন কোন বিষয়ে কাজ করে। অর্গানাইজেশনের Mission, Vision এবং Goal জানার চেষ্টা করুন। Recent কোন কাজের Media Report থাকলে তা পড়ে নিন এবং উল্লেখ করুন। Interview Board এ যারা আছেন তারা যখন দেখবে আপনি Updated তারা আপনার সম্পর্কে Differently চিন্তা করবে।

৪। Why do you consider yourself best in this position/ আপনি কেন এই অবস্থানে নিজেকে সেরা বিবেচনা করেছেন?

“আমি JD তে উল্লেখিত সব কাজ সঠিক ভাবে করতে পারব। এবং আমার Current Position এ আমি এই কাজগুলো সবসময় করে আসছি।” এ ধরনের উত্তর না দিয়ে Point আকারে বলার চেষ্টা করুন। JD তে কয়টা Major Task এর কথা বলা আছে এবং Example দিয়ে বলুন আপনি কিভাবে / কোথায় কিভাবে Same Task Completion করেছেন।

৫। Please mention your strength and weakness / আপনার সবল ও দূর্বল দিকগুলো সম্পর্কে কিছু বলুন?

Irrelevant কোন Strength বা Weakness উল্লেখ করার প্রয়োজন নেই। Please mention your strength and weakness related to applied Job। এমন কোন Weakness এর কথা উল্লেখ করবেন না, যা এই Position এ Mandatory ছিল। যে Strength উল্লেখিত Position এর সাথে Related বা Supplement করবে তা উল্লেখ করুন।

বিষয়টি এমন নয় যে, ইন্টারভিউ পরীক্ষায় এই কয়টি প্রশ্নের উত্তর মুখস্থ করে গেলেই আপনার চাকুরি সুনিশ্চিত! বরং আমি আমার লেখায় শুধুমাত্র কিছু কমন প্রশ্নের উত্তর প্রদানের ক্ষেত্রে কি ধরণের কৌশল অবলম্বন করতে পারেন, সেই বিষয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করেছি। ভাইভা পরীক্ষার ক্ষেত্রে ব্যক্তির উপস্থাপন দক্ষতা একটা বড় প্রভাবক হিসেবে কাজ করেন। কারণ, আপনার প্রশ্নের উত্তর প্রদানের মধ্য দিয়ে বোর্ডে থাকা মানুষগণ আপনার উপস্থাপনার দক্ষতা সম্পর্কেও একটা স্পষ্ট ধারণা পেয়ে যাবেন। আত্মবিশ্বাসের সাথে উত্তর দিন। চেষ্টা চালিয়ে যান। সাফল্য আসবেই।  

 

লেখক : মাসুম চৌধুরী, উন্নয়নকর্মী (আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থায় কর্মরত)

ইমেইল : masum-chowdhury@outlook.com

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
About Author

Voicebd Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *